হোম দেশ Tagore: তোমার সৃষ্টির চেয়েও তুমি যে মহৎ

Tagore: তোমার সৃষ্টির চেয়েও তুমি যে মহৎ

bikash palড. বিকাশ পাল, লন্ডন

আজ ২২শে শ্রাবণ। তিনি যত বছর আমাদের পৃথিবীতে ছিলেন, ঠিক তত বছরই হল এ পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন। তবে এখন তিনি আমাদের দর্শন স্পর্শনের জগতে না থাকলেও, আমাদের অস্তিত্বের  প্রতি মুহূর্ত জুড়েই রয়েছেন। তাঁর জীবনে যত দহন ছিল, তার চেয়েও বেশি ছিল সহন। তাঁর জীবদ্দশায় তিনি যত অপমান সহ্য করেছেন, তত বোধ হয় আর কোনো বাঙালিকে সহ্য করতে হয়নি। তেমনি নোবেল পুরস্কার পাওয়ার পর তাঁর জীবনে যে বিশ্ব সম্মান তিনি পেয়েছেন, তত সম্মান আর কোনো বাঙালি তো নয়ই, বরং ক’জন বিশ্ববাসীর কপালে জুটেছে, তা হাতেই গোনা যেতে পারে।

মরণের মিছিলের মধ্য দিয়েই তাঁর জীবনকে জানার শুরু। বৌদি কাদম্বরী, স্ত্রী মৃণালিনী, ছেলে শমি, মেয়ে মাধুরীলতা ও রানু, এঁদের একের পর এক অকালে চলে যাওয়া, তাঁর জীবনে যত আঘাত এনেছে, ততই তাঁর জীবনের প্রতি আগ্রহ আর ভালোবাসার গভীরতা বেড়েছে। সেই নিবিড় আগ্রহ নিয়েই  তিনি তাঁর পরাণসখার কাছে প্রার্থনা করেছেন – 
“প্রাণ ভরিয়ে তৃষা হরিয়ে ,
আরো আরো আরো
দাও প্রাণ।”
তাঁর জীবনে দুঃখ ছিল, আঘাত ছিল ঠিকই, কিন্তু সে সবের জন্য তাঁর চিত্তও  যেমন বিচলিত হয়নি, তেমনি তাঁর চেতনারও কোনো ক্ষয় ক্ষতি হয়নি। তাই তো তাঁর কলম থেকে বেরিয়েছে:
“সংসারেতে ঘটিলে ক্ষতি
লভিলে শুধু বঞ্চনা,
নিজের মনে
না যেন মানি ক্ষয়”।

দুঃখ, যন্ত্রণা, নিরাশার এক অন্ধকারময় অনুভূতির প্রেক্ষিতে তাঁর অনেক কবিতা, গান শুরু হলেও, তিনি শেষ কিন্তু করেছেন আশা আর আনন্দের আলোয়। তিনি যে আলোর কবি। তাই তাঁর সুরের আলো ভুবনকে ছাপিয়ে যায়। তাঁর জীবনের বাণী তাই আমাদের আনন্দময় অস্তিত্বের জন্য এক অনন্ত আশ্বাস। সেজন্যই তিনি আমার, আপনার আর সকলের চিরসখা। আজ ২২শে শ্রাবণ, তাঁর এই রকমই কয়েকটা গানের লাইন স্মরণ করে তাঁর মরণকে নয়, বরং তাঁর জীবনকেই আমরা উদযাপন করি।
“আমারে পড়িবে মনে কখন সে লাগি
প্রহরে প্রহরে গান গেয়ে জাগি”,

“মম দুঃখ বেদন
মম সফল স্বপন,
তুমি ভরিবে সৌরভে,
নীশিথিনী সম,
তুমি রবে নীরবে
হৃদয়ে মম।”

“তখন কে বলে গো
সেই প্রভাতে নেই আমি,
সকল খেলায়  খেলবে
সেদিন এই আমি,
আহা কে বলে গো
সেই প্রভাতে নেই আমি”

“হে পূর্ণ তব
চরণের কাছে
যাহা কিছু সব
আছে আছে আছে,
নাই নাই নাই,
সে শুধু আমারই,
নিশিদিন কাঁদি তাই
তোমার অসীমে
প্রাণ মন লয়ে
যতদূরে আমি ধাই,
কোথাও দুঃখ কোথাও মৃত্যু,
কোথা বিচ্ছেদ নাই”

“তরঙ্গ  মিলায়ে যায়,
তরঙ্গ উঠে
কুসুম ঝড়িয়া পড়ে,
কুসুম ফোটে।
নাহি ক্ষয় নাহি শেষ
নাহি নাহি দৈন্যলেষ
সেই পূর্ণতার পায়ে
মন-স্থান মাগে।
আছে দুঃখ, আছে মৃত্যু,
বিরহ দহন লাগে,
তবুও শান্তি, তবু আনন্দ,
তবু অনন্ত জাগে॥”

এই সব গানের মধ্যে যে বার্তা লুকিয়ে আছে, তা উপলব্ধি করার চেষ্টা করলে বোঝা যায়,  সব গানেই তিনি জাগতিক দুঃখ বিরহ যন্ত্রণার অনুভূতি দিয়ে আমাদের টানছেন। কিন্তু শেষের লাইনে তিনি আমাদের দিচ্ছেন এক আনন্দলোকের ঈশারা। গানের শুরু জাগতিক সত্য দিয়ে, মঙ্গলের মধ্য দিয়ে তাঁর এগিয়ে চলা আর আনন্দে সমাপ্তি। ইনিই আমার রবীন্দ্রনাথ।

সবাই যা পড়ছেন

Closing ceremony of CISCE National Sports & Games Tennis Tournament

CISCE National Sports & Games Tennis Tournament, 2022 under the aegis of the Council for the Indian School Certificate Examinations (CISCE) held...

শিক্ষক নিয়োগে ইন্টারভিউ : নতুন তারিখ ঘোষণা, ভুল স্বীকার এসএসি-র

উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিতে তারিখের বিভ্রান্তি নিয়ে ভুলের কথা স্বীকার করল স্কুল সার্ভিস কমিশন। শনিবার এই ভুল নিয়ে মুখ খুলেছেন স্কুল...

উৎসব জমজমাট, ‘শরদের স্বাদ’-এ মিলবে ‘FreshToHome’-এর খাবার

এবারের দুর্গা পুজোয়, বিশ্বের সবচেয়ে বড় পুরোপুরি ইন্টিগ্রেটেড মাংস এবং সি ফুডের ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম, ফ্রেশ-টু-হোমের সব ধরনের খাবার মিলবে 'শরদের স্বাদ'-এ। এই...

একদিনের পুজো, দেবীর বোধনের আনন্দের মধ্যেই বিসর্জনের বিষাদ

অভিজিৎ হাজরা, উলুবেড়িয়া, হাওড়া: মহাষষ্ঠীতে দেবীর বোধনের দিনেই বিসর্জন। উৎসবের এই ঐতিহ্য দীর্ঘ ১১০ বছর ধরে বহন করে আসছে হাওড়ার উলুবেড়িয়ার এক গ্ৰাম।...

Mamata inaugurates Bhowanipur 75 Palli with its theme ‘Aitijhya Beche Thakuk’

The members of Bhowanipur 75 Palli have taken up the challenge to discover the theme ‘Aitijhya Beche Thakuk’ - ‘Let the Heritage...