হোম আন্তর্জাতিক ভারতীয় দূতাবাস কিছুই করছে না, সরকার কি আমাদের মৃতদেহ ফেরাবে? প্রশ্ন পড়ুয়াদের

ভারতীয় দূতাবাস কিছুই করছে না, সরকার কি আমাদের মৃতদেহ ফেরাবে? প্রশ্ন পড়ুয়াদের

ইউক্রেনে আটকে থাকা ভারতীয় ছাত্রছাত্রীরা প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কায় শঙ্কিত। মঙ্গলবার খারকিভে বিস্ফোরণে এক ভারতীয় ছাত্র নিহত হওয়ার পর তাঁরা আরও ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ক্ষুব্ধ ভারতীয় পড়ুয়ারা। ভারতীয় দূতাবাস নীরব দর্শক হয়ে থাকা ছাড়া কার্যত কিছুই করছে না বলে তাঁদের অভিযোগ। সরকার কি তাঁদের জীবিত অবস্থায় দেশে ফেরাবেন, নাকি মৃতদেহ ফেরাবেন? এই প্রশ্নও ছুড়ে দিয়েছেন তাঁরা।

মঙ্গলবার খারকিভের রাস্তায় খাবার কিনতে বেরিয়েছিলেন নবীন শেখারাপ্পা জ্ঞানগউধর নামে কর্নাটকের বাসিন্দা এক ভারতীয় ছাত্র। খাবারের জন্য তিনি যখন লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন, তখনই রাশিয়ার বোমা বিস্ফোরণে তাঁর মৃত্যু হয়।

নবীনের এই মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই ভারতীয় পড়ুয়াদের ক্ষোভ বাড়তে থাকে। পূজা প্রহরাজ এক ভারতীয় ছাত্রী টুইট করে ভারত সরকারের কাছে জানতে চেয়েছেন, “গত ৬ দিনে খারকিভের ছাত্রছাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য ভারতীয় দূতাবাস কিছুই করেনি। এর মধ্যেই আজ একজন ভারতীয় ছাত্র নিহত হলেন। কাল হয়তো আরও ১০০ জন মারা যাবেন। তারপর ১০০০।” ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দফতরের নাম করে এরপর ওই ছাত্রী জানতে চান, “বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর কি আমাদের ৪০০০ দেহ ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চান?’

গোটা ইউক্রেনে এখন প্রায় ১৬ হাজার ভারতীয় পড়ুয়া আটকে রয়েছেন। সন্তানদের উদ্বেগের কথা কেন্দ্রীয় সরকারকে জানিয়েছেন অভিভাবকরা। জবাবে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, আটক ছাত্রছাত্রীদের দেশে ফেরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। কিন্তু সরকারের আশ্বাসই সার। কার্যত যে কোনও কাজই হয়নি, তা খারকিভের ওই ছাত্রীর অভিযোগ থেকেই স্পষ্ট। ওই ছাত্রী অভিযোগ করেছেন, ভারতীয় দূতাবাস তাঁদের নিরাপত্তার সামান্য ব্যবস্থাও করেনি। এমনকি ফোন করা হলেও, কেউ তা ধরেনি।

খারকিভে আটকে থাকা ভারতীয় ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগ, তাঁদের অনেকেই দিনের পর দিন খেতে পাচ্ছেন না। মেয়েদের স্যানিটারি ন্যাপকিন, স্বাস্থ্যসম্মত শৌচালয়— কোনও কিছুই মিলছে না। ইউক্রেনের স্থানীয় বাসিন্দারাও তাঁদের কোনওরকম সাহায্য করছেন না।

ওই ছাত্রীরই পোস্ট করা একটি ভিডিয়োয় দুই ভারতীয় ছাত্রী জানিয়েছেন, ইউক্রেনের মানুষ তাঁদের উপর ক্ষিপ্ত এবং বিরক্ত। সাহায্যে বিমুখ।

খারকিভের ছাত্রীরা জানাচ্ছেন, “এখানে লাগাতার ক্ষেপণাস্ত্র এবং বোমা বর্ষণ চলছে। আমরা ৫ মিনিটের জন্যও আশ্রয় স্থল থেকে বেরোতে পারছি না। কারণ, যে কোনও সময়ে প্রাণ হারানোর ভয় রয়েছে।”

সবাই যা পড়ছেন

Akash-BYJU’S: ২ হাজার দুঃস্থ পড়ুয়াকে নিখরচায় NEET, JEE-এর কোচিং ও বৃত্তি

স্বাধীনতার ৭৫তম বর্ষপূর্তিতে 'আজাদি কা অমৃত মহোৎসব'-কে সামনে রেখে 'সবার জন্য শিক্ষা' প্রকল্প চালু করল দেশের প্রথম সারির বেসরকারি কোচিং সংস্থা আকাশ...

Modi: প্রধানমন্ত্রী মোদির সম্পদের পরিমাণ ২.২৪ কোটি টাকা

২০২১-২২ অর্থবর্ষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে ১৩ শতাংশ। তাঁর হাতে নগদ রয়েছে ৩৫ হাজার ২৫০ টাকা। পিএমও...

Tagore: তোমার সৃষ্টির চেয়েও তুমি যে মহৎ

ড. বিকাশ পাল, লন্ডন আজ ২২শে শ্রাবণ। তিনি যত বছর আমাদের পৃথিবীতে ছিলেন, ঠিক তত বছরই হল এ পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন।...

আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায়ের ১৬১-তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

সৈকত কুমার বসু: ভারতীয় উপমহাদেশের প্রথম রসায়ন শিল্প ক্ষেত্র তৈরির কারিগর, রসায়নের জনক, বেঙ্গল কেমিক্যালসের রূপকার আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায়ের ১৬১তম জন্মবার্ষিকী...

কম খরচে বাংলার পড়ুয়াদের উচ্চশিক্ষার সুযোগ দিচ্ছে পাঞ্জাবের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

রাজ্যের পড়ূয়াদের কম খরচে উচ্চশিক্ষার সুযোগ নিয়ে এসেছে ভাতিন্ডায় পাঞ্জাব সরকারের বিশ্ববিদ্যালয়  মহারাজা রঞ্জিত সিং পাঞ্জাব টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি (MRS-PTU)। সঙ্গে রয়েছে আকর্ষণীয়...